রিয়াল মাদ্রিদ আসলে কী চায়?

পারিশ্রমিকের বিনিময়ে জুভেন্টাসের কাছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে ছেড়ে দেয় রিয়াল মাদ্রিদ।
 বার্নাব্যুতে কে হবে সিআর সেভেনের যোগ্য উত্তরসূরি?
 ফুটবলপ্রেমীদের মধ্যে তা নিয়েই চলছে জল্পনা-কল্পনা।
সম্প্রতি বিশ্ব সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত বিভিন্ন প্রতিবেদনে রোনালদোর উত্তরসূরি হিসেবে বেশ কিছু নামও প্রকাশ করা হয়। যেখানে শীর্ষে রয়েছে নেইমার, এমবাপ্পে কিংবা হ্যাজার্ডের মতো তারকা ফুটবলারের নাম।
কিন্তু এখন পর্যন্ত রিয়াল মাদ্রিদ তাদের কাউকেই দলে ভেড়াননি। প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর (পিএসজি) দুই তারকা ইতোমধ্যেই নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করে দিয়েছেন। নেইমার-এমবাপ্পে দুজনেই সাফ জানিয়ে দিয়েছেন যে, প্যারিস ছাড়ছেন না তারা। এর ফলে রিয়াল ভক্তদের শঙ্কা বেড়ে গেছে আরও। 
তাহলে কী শূন্য থাকবে রোনালদোর স্থান?
নাকি নতুন কোনো পরিকল্পনা করছে স্প্যানিশ জায়ান্টরা? জিদান-রোনালদোর পরের যুগে রিয়াল মাদ্রিদ কী নতুন কিছু ভাবছে?
নতুন মৌসুম শুরু হতে এখনও মাসখানেক সময় বাকি। ২০১৮-১৯ দলবদলে ইতোমধ্যেই চার ফুটবলারকে নিশ্চিত করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। তারা হলেন আলভারো অদ্রিওজোলা, ভিনিসিয়াস জুনিয়র এবং আন্দ্রিয় লুনিন। এ ছাড়া আগামী জানুয়ারিতে ১৮ বছর পূর্ণ হওয়ার পর রিয়ালে যোগ দিবেন ব্রাজিলের আরেক বিস্ময়বালক রদ্রিগো।
তার আগে সোমবার নতুন মৌসুমে তৃতীয় ফুটবলার হিসেবে আদ্রিয় লুনিনকে সমর্থকদের সঙ্গে পরিচয় করে দিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। জোরিয়া লুহানস্ক থেকে আগামী ছয় বছরের চুক্তিতে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেন লুনিন। ধারণা করা হচ্ছে, সাবেক কোচ জিদানের পুত্র লুকা জিদানের বদলে তাকে কেনা হয়েছে। লুনিন অবশ্য রিয়াল মাদ্রিদের তৃতীয় পছন্দের গোলরক্ষক। তবে ভবিষ্যতে তার ওপরই নির্ভর করতে চায় বলেও সাফ জানিয়ে দিয়েছেন ক্লাব সভাপতি ফ্লোরেন্টিনো পেরেজ।
দলের সেরা তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর জুভেন্টাসে চলে যাওয়ার পর তার শূন্যস্থান পূরণে টাকার ঝুলি নিয়েই মাঠে নেমে পড়ার কথা ছিল রিয়াল মাদ্রিদের। অথচ এই সময়টাতে তেমন কিছু চোখে পড়ছে না ইতিহাসের প্রথম দল হিসেবে টানা দুইবার ইউরোপ সেরার মুকুট পরা রিয়াল মাদ্রিদের। বরং এই সময়ে ফ্লোরেন্টিনো পেরেজ অখ্যাত নবীন খেলোয়াড় কেনায় ব্যস্ত।
প্রকৃতপক্ষে রিয়াল মাদ্রিদ কী চায়? গত মৌসুমেই কিলিয়ান এমবাপ্পেকে কেনার কথা ছিল তাদের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মোনাকো থেকে ফরাসি তারকাকে ধারে নিয়ে যায় পিএসজি। এরপর আলোচনায় নেইমারকে কিনতে মরিয়া রিয়াল। এখন পর্যন্ত সেটাও বাস্তবতার মুখ দেখেনি। সর্বশেষ আলোচনায় হ্যাজার্ড। বিশ্বকাপে দারুণভাবে মেলে ধরা বেলজিয়ামের এই তারকাকে চায় রিয়াল। কতটুকু সত্য হবে এই গুঞ্জন? সেটাও এখন ভক্ত-অনুরাগীদের দেখার অপেক্ষা।
তবে ফুটবলবোদ্ধাদের অনেকেই মনে করছেন, রিয়াল মাদ্রিদ এখন নতুন করে দল গঠনে ব্যস্ত। সোমবার আন্দ্রিয় লুনিনকে সমর্থকদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার সময় ফ্লোরেন্টিনো পেরেজের বক্তব্যও যেন সেই ইঙ্গিত দিচ্ছে। রিয়াল মাদ্রিদের ক্লাব সভাপতি এ সময় নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন, ‘ধীরে ধীরে আমরা দলের বর্তমান এবং ভবিষ্যতের ভিত্তিপ্রস্তর গড়ে তুলছি। আমরা তরুণ প্রতিভাকে এক করার চেষ্টা করছি যা ভবিষ্যৎ দল গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। আমরা এমন সব খেলোয়াড়কে দলে ভেড়াচ্ছি যারা তাদের সর্বোচ্চটা দেওয়ার চেষ্টা করবে।’
এরপরই গোলরক্ষক লুনিনের প্রসঙ্গ তুলে আনেন পেরেজ। তিনি বলেন, ‘লুনিনকে অনেক ক্লাবই কিনতে চেয়েছিল কিন্তু কোথায় যাবে সে নিজেই সেটা পরিষ্কার করেছে। সে ভবিষ্যতের কিংবদন্তি গোলরক্ষকদের একজন তা ইতোমধ্যেই দেখিয়েছে লুনিন!’

0 Comment "রিয়াল মাদ্রিদ আসলে কী চায়?"

Post a Comment